Umar Akmal Banned For Three Years : Umar Akmal Banned From All Forms Of Cricket For Three Years Over Corruption Charges – দুটি বল ছাড়লেই দেড় কোটি! তিন বছরের জন্য নির্বাসিত উমর আকমল

0
9
Print Friendly, PDF & Email

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তান ক্রিকেট টিমের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান উমর আকমলকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ করল সে দেশের বোর্ড। দূর্নীতির অভিযোগে আগামী তিন বছর কোনও ঘরোয়া ক্রিকেট ম্যাচও খেলতে পারবেন না উমর, পাক ক্রিকেট বোর্ডের তরফে এমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ, ম্যাচ ফিক্সিং প্রস্তাব পাওয়া সত্ত্বেও উমর তা গোপন করেন। এই বিষয়ে পাক ক্রিকেট বোর্ডকে তিনি কিছুই জানাননি বলে বোর্ডের তরফে পরিষ্কার করে বলে দেওয়া হয়েছে। আর সেই কারণবশতই পাকিস্তান সুপার লিগেও তাঁকে খেলতে দেওয়া হয়নি। যদিও সেই লিগ COVID-19 সংক্রমণের কারণে থমকে যায়।

সূত্রের খবর, উমরকে আত্মপক্ষ সমর্থনের কোনও সুযোগ দেওয়া হয়নি। সোমবার পাক ক্রিকেট বোর্ডের ডিসিপ্লিনারি প্যানেলের প্রধান ফজল-এ-মিরান চৌহান তাঁকে সব ফরম্যাটের ক্রিকেট থেকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করেন। পিসিবি মিডিয়ার তরফে ট্যুইট করেও জানানো হয়েছে এই খবর।

ভাইয়ের এই নির্বাসনের খবরে হতবাক দাদা কামরান আকমাল। উমর এই শাস্তিকে চ্যালেঞ্জ জানাবেন বলে তাঁর দাবি। কামরানের কথায়, “ন্যায়বিচারের জন্য আমরা সব প্ল্যাটফর্মে যাব। এই অবস্থা থেকে যে ভাবেই হোক আমরা বেরোবো।” পাশাপাশিই তিনি আরও জানিয়েছেন যে, তথ্য গোপনের শাস্তি এত বড় হয় না।

আরও পড়ুন: এঁদো গলি থেকে স্বপ্নের রাজপথ! একসময়ের এই IPL তারকারা আজ কোথায়?

কামরানের কথায়, “উমরকে কেন এত কঠিন শাস্তি দেওয়া হল, তা আমার বোধগম্য হচ্ছে না।” তবে এই শাস্তির বিরুদ্ধে তিনি এবং তাঁর পরিবার ভাইয়ের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়বেন বলে আরও জানিয়েছেন কামরান।

অনুশীলনের ফাঁকে উমর এবং কামরান!

ভাবলেশহীন উমর বরাবরই রণংদেহি মেজাজের ব্যাটিংয়ের জন্যই পরিচিত। তাঁর উইকেটকিপিংও বিশ্ব ক্রিকেটে যথেষ্ট সমাদৃত। পাকিস্তানের হয়ে ১৬টি টেস্ট, ১২১টি ওয়ান ডে ও ৮৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন উমর আকমল। দীর্ঘ দিন দাদা কামরান আকমলের পরিবর্তে পাকিস্তান ক্রিকেট দলে উইকেটরক্ষকের ভূমিকাও পালন করে এসেছেন উমর।

আরও পড়ুন: ১৫ বছরের ক্রিকেট জীবনকে বিদায় জানালেন সানা মির!


পাক ক্রিকেট বোর্ডের তরফে তাঁকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে উমর আকমল জানিয়েছেন, বুকিরা তাঁকে দুটি ডেলিভারি ছেড়ে দেওয়ার পরিবর্তে দুই লক্ষ ডলার দেবে বলে জানিয়েছিল। অর্থাৎ ভারতীয় মূল্যে দেড় কোটি টাকারও কিছু বেশি। পাশাপাশিই উমর এ-ও জানিয়েছেন যে, সেই প্রস্তাতে তিনি রাজি হননি। কিন্তু তথ্য গোপন করে গিয়েছেন বলেই এই কঠিন শাস্তি ধেয়ে এল তাঁর জীবনে।



Source link