ফ্রাংক অ্যাপারেলের শ্রমিকদের আগ্রাবাদ মোড় অবরোধ, নেপথ্যে ৩ কারণ

0
22
Print Friendly, PDF & Email

শ্রমিকদের বেতন দেওয়ার কথা ছিল বৃহস্পতিবার। ওদিন বেতন নিতে এলে তাদের জানানো হল শনিবার আসতে। শনিবার এসে দেখা গেল একই চিত্র। বেতন পাচ্ছেন না শ্রমিকরা। পাশাপাশি এলো বেশকিছু শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণা। শুধু তাই নয়, সাধারণ ছুটিতে যারা আসতে পারেননি তাদের বেতনও নাকি কাটা যাবে অনুপস্থিতির দিন গুনে।

এসব দেখে ক্ষোভে রাস্তায় নেমে এলো শতাধিক শ্রমিক। সড়ক অবরোধ করে চলতে থাকলো বিক্ষোভও।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) সকাল ১১টা থেকে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের ফ্রাংক অ্যাপারেল নামে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা আগ্রাবাদ মোড় অবরোধ করে এ বিক্ষোভ শুরু করে।

জানা গেছে, বকেয়া বেতন, সাধারণ ছুটিতে বেতন কেটে নেওয়া এবং শ্রমিক ছাটাইয়ের প্রতিবাদে ফ্রাংক এ্যাপারেলের শ্রমিকরা সড়কে নেমে আসে। শ্রমিকরা রাস্তায় বিক্ষোভ শুরু করলে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ এ মোড়ের চার দিক থেকেই যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আন্দোলনরত শ্রমিকরা জানান, শনিবার এই পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের কথা ছিল। শনিবার সকাল থেকে তাই শ্রমিকরা কারখানায় উপস্থিত হয়। কিন্তু চার-পাঁচ ঘন্টা বেতনের জন্য অপেক্ষা করার পর মালিকপক্ষ থেকে বলা হয় শনিবার বেতন পরিশোধ হবে না।

ফ্রাংক অ্যাপারেল লিমিটেড কোম্পানির কর্মচারী আয়েশা আক্তার বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার আমাদের বেতন দেওয়ার কথা ছিল কিন্তু দেয়নি কোম্পানি। বললো শনিবার আসতে। আজ এসেও দেখছি বেতন দিচ্ছে না। এ দুর্যোগের সময়ে আমরা কোথায় যাবো, কি খাবো? কি ভাবে বাসা ভাড়া দিব?’

আরও কয়েকজন শ্রমিক বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানটি বেশ কিছু শ্রমিক ছাটাই করেছে। এছাড়া সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি যারা আসতে পারেনি তাদের বেতন থেকে বেতন থেকে টাকা কেটে রাখার ঘোষণা দিয়েছে। তাই শ্রমিকরা বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নেমেছে।’

এদিকে আগ্রাবাদ মোড়ের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শ্রমিক ও মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা বলে। পুলিশের মধ্যস্থতায় ২৮ এপ্রিল বেতন পরিশোধ করার প্রতিশ্রুতি দেয় প্রতিষ্ঠানটির মালিকপক্ষ। এরপর শ্রমিকরা সড়ক থেকে সরে যায়।

এ ব্যাপারে নগরের ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সদীপ কুমার দাশ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘ফ্রাংক অ্যাপারেল লিমিটেড কোম্পানির মালিকপক্ষ ২৮ এপ্রিল শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। পুলিশের মধ্যস্থতায় বেতন দিবেন এ শর্তে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।’

এএস/এমএফও



Source link