করোনার ভয়ে হিন্দু বৃদ্ধের সৎকারে নেই কেউ, মরদেহ নিলেন মুসলিমরা

0
126
Print Friendly, PDF & Email

করোনার ভয়ে হিন্দু বৃদ্ধের সৎকারে নেই কেউ, মরদেহ কাঁধে নিলেন মুসলিমরা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বর্তমান বিশ্বে করোনা সারা বিশ্বে এখন চলছে কঠিন পরিস্থিতি । সারা বিশ্বে চলছে লক ডাউন । এই পরিস্থিতে ভারতে ঘটে গেল এক নজিরবিহীন ঘটনা ।

ভারতে করোনা আতঙ্কের মধ্যে সম্প্রীতির অনন্য নজির গড়ল উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর। কিছু দিন আগেই হিংসার ঘটনায় শিরোনামে উঠে এসেছিলো এই শহরের নাম। এবার আবারও সেই শহর খবরের শিরোনামে উঠে এলো তবে সম্প্রীতির নজির রেখে।

সম্প্রতি বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার কারণে মৃত্যু হয় রবিশংকরের। প্রতিবেশীরা মনে করেছিলেন করোনা সংক্রমণের জেরেই হয়তো মৃত্যু হয়েছে রবিশংকরের। তাই শেষ দেখাটুকুও কেউ দেখতে আসেননি। পাড়া-প্রতিবেশী তো আসেনই-নি। এমনকী আত্মীয়-স্বজনরাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন অসহায়, শোকাহত পরিবারটির কাছ থেকে। তাহলে, সত্‍কার কী করে হবে? চিন্তায় পড়ে যান রবিশংকরের পরিবার। কারণ শ্মশান পর্যন্ত কাঁধে করে নিয়ে যাওয়ারও যে কেউ নেই!

এদিকে আবার রবিশংকরের পাড়ার পাশেই রয়েছে মুসলিম অধুষ্যিত এক এলাকা। খবর জানাজানি হতেই, একদল মুসলিম যুবক তত্‍ক্ষণাত্‍ চলে আসেন মৃত হিন্দু বৃদ্ধর বাড়িতে। জানতে পারেন, কাঁধ দেওয়ার কিংবা সত্‍কার করার কেউ নেই। অসহায় পরিবারের চরম বিপদ দেখে ওই মুসলিম যুবকরাই তার পরিবারকে আশ্বাস দেন যে, সত্‍কারের সমস্ত ব্যবস্থা তারাই করবেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ওই বৃদ্ধের দেহ কাঁধে নিয়ে শ্মশানের উদ্দেশে যাচ্ছেন ওই যুবকরা। মাথায় ফেজ টুপি আর মুখে রামনাম সত্য হ্যায় ধ্বনি তুলে। করোনা আতঙ্কে দেশ যখন জুবুথুবু, তখন মানবতার এক অনন্য নজির তৈরি করল বুলন্দশহর।

সুত্র- kolkatatv